ইসলামিক দেশের গোষ্ঠীকে কড়া হুঁশিয়ারি ভারতের।

ইসলামিক দেশের গোষ্ঠীকে কড়া হুঁশিয়ারি ভারতের।

 

জাতিসংঘের মঞ্চে ইসলামিক দেশের গোষ্ঠী ‘অর্গানাইজেশন অব ইসলামিক কো-অপারেশন’-কে কড়া হুঁশিয়ারি দিয়ে ভারত জানিয়ে দিয়েছে, তারা যেন ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে  মাথা না ঘামায়।

কাশ্মীর নিয়ে পাকিস্তানের করা মন্তব্যের প্রেক্ষিতে ভারত নিজেদের মতামত জানিয়েছে। পাকিস্তান ওআইসির সদস্য হলেও এই সংস্থার তরফে কাশ্মীর নিয়ে ভারতবিরোধী মন্তব্য করেছে। যার বিরোধিতা করেছে ভারত।

ভারত জানিয়েছে, ওআইসির এই বিষয়ে মতামত জানানোর কোনো অধিকার নেই। এটা একান্তই ভারতের আভ্যন্তরীণ বিষয়। ভবিষ্যতে এমন বিষযে মন্তব্য করতেও ওআইসিকে ভারত নিষেধ করে দিয়েছে।

ভারতের হয়ে জাতিসংঘে পাকিস্তানকে কড়া জবাব দেন ভারতের প্রতিনিধি সুমিত শেঠ। তিনি বলেন, ওআইসি নিজের বক্তব্যে তথ্যগত ভুল বক্তব্য পেশ করেছে। এতে জম্মু ও কাশ্মীর নিয়ে যে বক্তব্য পেশ করা হয়েছে তা সর্বৈব মিথ্যা।

কাশ্মীরে মানবাধিকার লঙ্ঘন হয়েছে বলে এর আগে পাকিস্তানি পররাষ্ট্রমন্ত্রী সরতাজ আজিজ সরব হয়েছেন।

এমনকী হিজবুল জঙ্গি বুরহান ওয়ানির মৃত্যু নিয়েও তিনি সরব হন। পাকিস্তানের মতে পাকিস্তানে ভারত শান্তি বিঘ্নিত করছে।
সেই প্রসঙ্গেই ভারত বলেছে, যে তথ্য পেশ করা হয়েছে তা ভুল। এমনকী ভবিষ্যতে এমন মন্তব্য করার আগে ভেবে মন্তব্য করতেও ভারত বলে দিয়েছে।

আগে থেকেই ওআইসি কাশ্মীর ইস্যুতে পাকিস্তানকে সমর্থন করে এসেছে। তাদের মতে জম্মু ও কাশ্মীরে যা হচ্ছে তা নিয়ে ভারতকে জবাবদিহি করতে হবে। এমনকি সেরাজ্যে মানবাধিকার লঙ্ঘন হচ্ছে বলে পাকিস্তানের দাবিকেও ওআইসি মেনে নেয়।

সেই প্রসঙ্গেই ভারত জাতিসংঘে জানিয়ে দিয়েছে, এই বিষয়ে পাকিস্তান বা ইসলামিক দেশের অর্গানাইজেশনের নাক গলানোর প্রয়োজন নেই। এটা দেশের অভ্যন্তরীণ বিষয় এবং তা আমরা নিজেরাই সামলে নিতে পারব।
সূত্র : ওয়ান ইন্ডিয়া

 

Related posts:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *