খুলনা জেলার দাকোপ উপজেলার বাজুয়া এস এন কলেজের ছাত্রলীগ সভাপতি দ্বারা হিন্দু মেয়ে ধর্ষন ” তারপর হত্যা। 

খুলনা জেলার দাকোপ উপজেলার বাজুয়া এস এন কলেজের ছাত্রলীগ সভাপতি দ্বারা হিন্দু মেয়ে ধর্ষন ” তারপর হত্যা। 

 

ঢাকা : খুলনা জেলার দাকোপ উপজেলার বাজুয়া এস এন কলেজের ছাত্রলীগ সভাপতি। ওর
জন্য আকালে প্রাণ গেল জয়ি মন্ডলের। জয়ি মন্ডল কে জোর করে তুলে নিয়ে গিয়ে গনধর্ষন করে তার পর হত্যা করে অকালে মৃত্যু হওয়াটা তার কথা ছিলোনা পরপারে রাস্তায় না ফেরার দেশে চলে যায়। এই যদি হয় একটা কলেজের শিক্ষা অবস্থান তাহলে মেয়েদের কি করে সেখানে শিখতে যাবে পড়তে যাবে, জয়ি মন্ডলের জীবনে এমন তো কথা ছিলো না, আর কত জয়ি মন্ডল এভাবে অকালে প্রান দিবেন তা সরকার বা প্রশাসনের কাছে প্রশ্ব রইলো। প্রশ্ন রইলো আপামোর জনগনের কাছে আপনার মেয়ে কলেজে গিয়ে ধর্ষিত হবে না তার কি গ্যারান্টি দিতে পারবেন?
ইনজামামুন এলাকায় অবাঞ্চিত ঘোষনার পাশাপাশি ওর ফাঁসি না হওয়া পর্যন্ত এলাকাবাসির সর্বত্রক।সহোযোগীতা কামনা করছে ধর্ষিতার পরিবার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের নামে ইনজামামুন মির্জা।এক জন বিবাহিত এবং অছাত্র। নেশাগ্রস্থ লোক কলেজে নতুন হিন্দু মেয়ে আসলে ওর সাথে প্রেম না করলে কলেজে আসতে দেবে না!! ও কি এলাকার ক্যাডার। না ওর বাপের কলেজ,, জনগন জানতে চায়?

এমন সন্ত্রাসী সহ তার সাথে সহযোগী কারিদের দৃষ্টান্তো মূলক শাস্তি দাবী করছে ধর্ষিতার পরিবার সহ এলাকাবাসি।
হিন্দু মেয়ে বলে যেনো ও ছাড় না পায়।
কম করে হলে যেনো মেয়েটার পরিবার বর্গ সরকার ও প্রশাসনের কাছে বিনীত ভাবে তার ফাঁসি দাবি করছেন যদিও পরিবার বর্গ তার মেয়েকে আর ফিরে পাবে না।
কিন্তু জয়ি মন্ডলের মতো আর কারো মায়ের বুক যেন অকালে জরে না পরে তার জন্য সবার কাছে দুঃখ বিনীত কন্ঠে আকুল মিনতি জানিয়েছেন তার পরিবার আত্মীয় স্বজন।

(জয়ি মন্ডলের মায়ে চিঠি, এদেশের মানুষের প্রতি)

আমার মা, মাটি (সোনার বাংলা) আমি তোমায় ভাল বাসি, বাংলাদেশে সংখ্যাগরিষ্ঠ মানুষের কাছে জয়ি মন্ডলের মায়ের চিঠি।
কেমন আছো মা?আমরা খুব ভালো আছি।তাই তো তোমাকে চিঠি লিখছি।ইন্টারনেটে তো এখানে আবেগ এর স্থান নেই। বাস্তব কি করে আশা করতে পারব, জানো মা?অসম্ভব সম্ভাবনা,উন্নয়নশীল আর দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল এ পৃথিবীরর সেরা স্থান দখলকারী দেশ, তুমি মা,আমার সোনার বাংলা।মাগো তোমার যোগ্য সন্তানরা সব দিক থেকে কতোই না এগিয়ে,গর্বে তোমার বুকটা ফুলে ওঠছে তাই না মা?৭১, ৫৭,দল বেধে জাতি ধর্ম নির্বিশেষে, তোমার দামাল অবুঝ,অশিক্ষিত ছেলেরা ধর্ম ভেদাভেদ ভুলে, তোমার সম্ভ্রম কেরে নিয়েছে। আমি কাদঁছি তোমায় হাড়িয়ে , বাংলা ভাষার মান রেখেছে। স্বাধীনতার মান রেখেছে, গণতন্ত্রের মান রেখেছে? এজন্যই দেশ স্বাধীন হয়েছিলো আমাদের মতো মালাউনদের ধর্ষিত হবো বলে? কারন তখন ওরা এতোটা শিক্ষিত ছিলোনা মা,খুব ভালো ছিলো সেইদিন গুলো।
জানো মা এখন কোনো অপরাধী তার অপরাধ প্রমানের আগেই দেশের যোগ্য সন্তানেরা তোমাকে হত্যা করে ধর্ষন করলো আমরা মালাউন নাস্তিক বলে মা মাটি ,আমার মেয়ে ,লুটতরাজ,———-চলতেই থাকে এই উৎসব ।আচ্ছা মা,ওরা ও তো তোমারই সন্তান?এখানে মন্ত্রি,আমলা,বা প্রশাশন ও খুব ততপর।ওনারা খুব ধার্মিক কিনা, ধর্ম নিয়ে বাড়াবাড়ি? একদম সয্য করেনা,তাই তো ওনারা সর্বদাই প্রস্তুত অতন্দ্র প্রহরী।সব ধরনের সহোযোগীতায় সদা প্রস্তুত তবে সে শুধু আমরা মালাউনের সন্তান দের বিরুদ্ধে মা।এখানে রসরাজ জয়ি মন্ডলদের বিচার, অপরাধ প্রমান হওয়ার আগেই শুরূ হয়ে যায় আর জহির মাস্টাররা বুড়ো আঙুল দেখিয়ে, তোমরা মালাউনের সন্তানদের চ্যালেঞ্জ ছুড়ে চলে যায় মা।আর শ্যমল কান্তি, পুজা দাস, তুলসি রানী পূণিমা রানীদের বুকে চাপা কান্না নিয়ে দেশ ত্যাগের স্বপ্ন দেখে মা।তোমায় ওরা ছাড়তে চায় কেনো? তুমি মন খারাপ করছো??মা বিশ্বাস করো, ওরা তোমাকে অনেকে মিলে তোমার দেহটা ছিড়ে ছিড়ে খেয়েছে?
মন থেকে ভুলতে চায়না মা,তোমার ভালোবাসার মায়া কাটানো কি এত্ত সোজা মা?হোক না আমরা মালাউন। তুমি রেগে যাচ্ছ? বারবার মালাউন বলছি?জানো মা সবাই তোমার সন্তান, মায়ের কাছে সবাই সমান,কিন্তু মা জানোতো তোমাদের কোন মন্ত্রী নেতারা আমাদের ভালবাসতে শিখেনি এক মন্ত্রী, যে কিনা আন্তর্জাতিক ভাবে প্রকাশ্যে তোমার সন্তান দের মালাউন নামে ঘোষিত করেছে।অবাক হচ্ছো?
তোমাদের মেয়েদের, সে যে জাতেরই হোক না কেনো,সারাক্ষণ এক শ্রেনীর তথাকথিত শিক্ষিত ছেলেদের কামনার লোলুপ দৃষ্টি বাঁচিয়ে চলতে হয়।ধর্ষনেও ওরা অনেক এগিয়ে মা,না, না ৫ বছর ৫০ বছর কোন ফ্যাক্ট নয়।অবাক হচ্ছো? এখানে রোজা,পূজা একসাথে হয়না মা,পুজার শঙ্খ ধ্বনিতে আজানের প্রচন্ড অসুবিধা হয় মালাউনদের।

কিন্তু আযান প্রতিদিন পাঁচ বার ? মাইকে,তাও আবার এক ফুট পর পর মসজিদ থেকে মা আমার মা মাটি আমাদের দেশ বাংলাদেশ ।না,না,আমাদের কোন অসুবিধে হয়না,বরং আযান এর সুর ছোটবেলা থেকেই আমার ভালো লাগে,মা তখন ডেকে বলতো,আযান দিচ্ছে ওঠ পড়তে বস।
থাক মা তুমি আর সইতে পারবেনা।তোমাদের দামাল ছেলেরা তোমার সোনার বাংলার মান রাখছে। খুব শিঘ্রই পৃথিবীতে বাংলা শ্রেষ্ঠ আসন নিতে চলেছে ।তূমি নিশ্চিন্তে ঘুমাও মা নিশ্চিন্তে ঘুমাও।আমরা মালাউন রা খুব ভালো আছি।
প্রনাম মা,মাটি বাংলাদেশরে সংখাগরিষ্ট আদরের মানুষ ।
ইতি,
আমরা হিন্দু জাতি। আমরা মালাউন? 

 

 

Related posts:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *