ফেনী জেলায় হিন্দু মহিলার গরু জবাই করে মাংস ভাগবাটোয়ারা!

ফেনী জেলায় হিন্দু মহিলার গরু জবাই করে মাংস ভাগবাটোয়ারা!

প্রতিকী

পরশুরামে অনন্তপুর গ্রামের এক অসহায়হিন্দু মহিলার গরু জোরপূর্বক জবাই করে ৪৩ কেজি মাংস ভাগবাটোয়ারা করে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় দেলু মিয়ার বিরুদ্ধে।স্থানীয় শালিসদারগন গরুর জবাই করার অপরাধে ও মাংস ভাটবাটোয়ারা করার সত্যতা পেয়ে শালিসের মাধ্যমে অভিযুক্ত দেলু মিয়ার ২০ হাজার টাকা জরিমানা করলেও টাকা দিতে গরিমসি করছে প্রভাবশালীরা।এলাকাবাসী জানায়, অনন্তপুর গ্রামের মৃত গোপাল টেইলারের স্ত্রী রেখা বালা নাথের একমাত্র সম্বল ওই গরু। ওই সম্বল ছাড়া তার আর কিছুই নেই। পরিবারের কোন উপার্জ্জনক্ষম ব্যাক্তি না থাকায় ৪ মেয়েকে নিয়ে বর্তমানে রেখা বালা নাথ মানবেতর জীবন যাপন করছে। আগামী কোরবানির হাটে বিক্রির লক্ষে ওই গরু লালন পালনকরছিলেন সে।কিন্তু ক্ষেত খাওয়ার অভিযোগে রোববারপাশ্ববর্তী অলকা গ্রামের মৃত দুদু মিয়ার ছেলে রেখা বালা নাথের গরু নিয়েমুহুরী ব্রিজের পশ্চিম পাশে নিয়ে প্রথমে গরুটির পা কেটে ফেলে ।পরে আরোকয়েকজন সহ গরুটি জবাই করে মাংস ভাট বাটোয়ারা করে নিয়ে যায়।এ ঘটনায় স্থানীয় হাছি মিয়ার মেয়ে বিষয়টি দেখতে পেয়ে লোকজন কে জানালে চিথলিয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান জসিম উদ্দিন ও পরশুরাম পৌরসভার কাউন্সিলর আবু তাহের বাঘার নেতৃত্বেএক শালিস বৈঠক বসে এতে গরু জবাই করার অভিযোগে দেলু মিয়ার ২০ হাজার টাকা জরিমান করে।পরশুরাম থানার অফিসার ইনচার্জ আবুল কাশেম চৌধুরীর কাছে এই বিষয় জানতে চাওয়া হলে তিনি বিষয়টি শুনেন নাই বলে জানান কেউ লিখিত অভিযোগ দিলে ব্যাবস্থা নেয়া হবে বলে জানান তিনি ।

 

 

Related posts:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *