ফের বাংলাদেশের কুমিল্লার মুরাদনগরে দুর্গা প্রতিমা ভাঙচুর।

ফের বাংলাদেশের কুমিল্লার মুরাদনগরে দুর্গা প্রতিমা ভাঙচুর।

 

ফের বাংলাদেশের সংখ্যালঘু হিন্দু সম্প্রদায়ের উপর হামলা। কুমিল্লা জেলার মুরাদনগর উপজেলায় দুর্গাপূজার একটি মণ্ডপের চারটি প্রতিমা প্রতিমা ভাংচুর করেছে দুর্বৃত্তরা। সোমবার (২৬ সেপ্টেম্বর) রাত ৩টার দিকে উপজেলার যাত্রাপুর গ্রামের বিমল চন্দ্র দাসের বাড়ির দুর্গা মণ্ডপে এই ঘটনা ঘটে।

মণ্ডপ কমিটির সভাপতি রাখাল চন্দ্র দাস জানান, রাতে পাহারার দায়িত্বে থাকা লোকজন দুইটার দিকে ঘুমাতে গেলে কে বা কারা দুইটা থেকে তিনটার মধ্যে মা লক্ষী, সরস্বতী, কার্তিক, গনেশের সুর ভাঙচুর করে।

এই ঘটনার খবর পেয়ে ২৬ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার সকালে মুরাদনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ রাসেলুল কাদের, অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এসএম বদিউজ্জামান, মুরাদনগর থানা তদন্ত (ওসি) হাবিবুর রহমান, মুুরাদনগর উপজেলা পূজা কমিটির সাবেক সভাপতি অধ্যাপক নিতাই চন্দ্র রায়, স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মো. আবুল কালাম আজাদসহ বিভিন্ন পর্যায়ে লোকজন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। পরে বিকালে কুমিল্লা জেলা পুলিশ সুপার মো. শাহ আবিদ হোসেন ঘটনাস্থল পরির্দশন করেন।

মঙ্গলবার সকালে বিমল চন্দ্র দাস মুরাদনগর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। মুরাদনগর থানার ওসি এসএম বদিউজ্জামান জানান, বিষয়টি খুবই নেক্কারজনক। তদন্ত চলছে, তদন্তে কাউকে কোনো প্রকার ছাড় দেয়া হবে না।

বাংলাদেশে প্রতিমা ভাঙার ঘটনা এই প্রথম নয়। এর আগে গত ২৬ আগস্ট দিনাজপুরের সদর উপজেলার মাশিমপুর ও ফুলতলায় প্রতিমা ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে এবং গত ১৭ সেপ্টেম্বর রাতে বীরগঞ্জ উপজেলা সদরে সনাতনপাড়া সার্বজনীন দুর্গা প্রতিমাসহ ৪টি প্রতিমার মাথা ভাঙচুর করে দুর্বৃত্তরা।

 

 

Related posts:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *