বাংলাদেশের কুড়িগ্রামে পরপর দুই মন্দিরে দুর্গা প্রতিমা ভাংচুর।

বাংলাদেশের কুড়িগ্রামে পরপর দুই মন্দিরে দুর্গা প্রতিমা ভাংচুর।

আন্তর্জাতিক,,
ঢাকা: বাংলাদেশের কুড়িগ্রামের উলিপুরে দুর্গা প্রতিমা ভাংচুর করেছে দুর্বৃত্তরা। এনিয়ে পরপর দু’দিন একই এলাকায় ২টি মন্দিরের প্রতিমা ভাংচুরের ঘটনা ঘটল। ঘটনায় এলাকার হিন্দু সমাজের মধ্যে ক্ষোভ ও আতঙ্ক বিরাজ করছে। ঘটনাটি ঘটেছে, রবিবার ভোররাতে পৌরসভার নারিকেল বাড়ি গাছতলা গোবিন্দ জিউ মন্দিরে।
জানা গেছে, আসন্ন শারদীয় দুর্গা পুজা উপলক্ষে পৌরসভার নারিকেল বাড়ি গাছতলা গোবিন্দ জিউ মন্দিরে পুজার জন্য প্রতিমা তৈরি করা হয়। রবিবার ভোর চারটার দিকে মন্দিরে ঢুকে প্রতিমা ভাংচুর করে একদল দুর্বৃত্ত। এ সময় মন্দিরে পাহাড়ারত তিন কিশোর ঘুমিয়ে ছিল।

মন্দিরে পাহাড়ারত সুব্র সরকার (১৮), মৃন্ময় সরকার (১৬) ও সুদর্শন সরকার (১৮) জানায়, প্রতিমা ভাংচুর শেষে দূর্বৃত্তরা পালিয়ে যাওয়ার সময় শব্দ পেয়ে আমাদের ঘুম ভেঙ্গে যায়। তাদের দৌঁড়ে পালাতে দেখে আমাদের চিৎকারে এলাকার লোকজন এগিয়ে আসে। খবর পেয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

অপরদিকে গত ০৬ অক্টোবর শনিবার নারিকেল বাড়ি বকুলতলা দুর্গা মন্দিরে থাকা শিব মূর্তি কে বা কারা ভাংচুর করে। পরপর দুদিন একই এলাকায় ২টি মন্দিরের প্রতিমা ভাংচুরের ঘটনায় হিন্দু সমাজের মধ্যে ক্ষোভ বিরাজ করছে। নারিকেল বাড়ি গাছতলা গোবিন্দ জীঁউ মন্দিরের সাধারণ সম্পাদক নলিনী কান্ত সরকার বলেন, পাহাড়াদারদের চিৎকার শুনে মন্দিরে এসে দেখি প্রতিমা ভাংচুর করা হয়েছে।
বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদের উলিপুর উপজেলা শাখার সাধারন সম্পাদক সৌমেন্দ্র প্রসাদ পান্ডে গবা জানিয়েছেন, এ ব্যাপারে আমরা থানায় দ্রুত লিখিত অভিযোগ দায়ের করব। কেউ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট করতে চাইলে তা প্রতিহত করা হবে।

উলিপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মোয়াজ্জেম হোসেন বলেন, ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। খোঁজ খবর নেয়া হচ্ছে। যে বা যারা এই ঘটনার সাথে জড়িত তাদের আইনের আওতায় আনা হবে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তৎপর রয়েছে।

তথ্যসুত্র, কলকাতা ট্রিবিউন,

 

 

Related posts:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *