বাংলাদেশে হিন্দুদের ওপর নির্যাতন হচ্ছে,ভারতের উচিত তাদের পাশে দাঁড়ানোঃলকেট চ্যাটার্জি।

বাংলাদেশে হিন্দুদের ওপর নির্যাতন হচ্ছে,ভারতের উচিত তাদের পাশে দাঁড়ানোঃলকেট চ্যাটার্জি।

 

ঢাকা :বাংলাদেশে হিন্দুদের ওপর নির্যাতন হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন ভারতের পশ্চিমবঙ্গে অভিনেত্রী ও ক্ষমতাসীন বিজেপির নেত্রী লকেট চ্যাটার্জি। তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশে হিন্দুদের ওপর নির্যাতন হচ্ছে। এটা আমরা প্রতিদিন দেখতে পাচ্ছি। প্রতিদিনই বাংলাদেশে হিন্দুরা অত্যাচারিত হচ্ছে। পশ্চিমবঙ্গের মানুষের উচিত তাদের পাশে দাঁড়ানো।’

মঙ্গলবার ভাইফোঁটা উপলক্ষে উত্তর ২৪ পরগনার ঘোজাডাঙ্গায় ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে বিএসএফ জওয়ানদের ফোঁটা দিতে যান লকেট। সেখানেই এক অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন তিনি।

এদিকে লকেটের এই মন্তব্যের ফলে খোদ বিজেপি শিবিরে শুরু হয়েছে অস্বস্তি। কেননা কিছুদিন আগেই বিজেপির সংসদ সদস্য অভিনেত্রী রুপা গাঙ্গুলী বাংলাদেশ ঘুরে এসে জানান, সেখানে হিন্দুরা ভালো আছে। অবশ্য রুপার এই মন্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেছিলেন, পশ্চিমবঙ্গে আন্দোলনের জের ধরেই বাংলাদেশ সরকার সে দেশে হিন্দুদের সুরক্ষা দিতে বাধ্য হয়েছেন।

মাত্র কয়েকদিনের ব্যবধানে বিজেপির দুই নেত্রীর পুরোপুরি উল্টো মন্তব্যের কারণে বিজেপিতে এই অস্বস্তি তৈরি হয়েছে।

অবশ্য আজ লকেট চ্যাটার্জি শুধু বাংলাদেশে হিন্দুদের সুরক্ষা নিয়েই মন্তব্য করেননি। নিজের রাজ্য পশ্চিমবঙ্গকে নিয়েও কথা বলেছেন তিনি। লকেট বলেন, হিন্দুদের ওপর অত্যাচারের ঘটনায় পশ্চিমবঙ্গও কম যায় না। দুর্গাপূজার সময় উত্তর ২৪ পরগনা জেলার নৈহাটি এলাকার একটি সাম্প্রদায়িক ঘটনার কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, সেখানে সার্জিক্যাল স্ট্রাইক নিয়ে একটা থিম করা হয়েছিল। কিন্তু প্রশাসন গিয়ে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে পোস্টার তুলে দিতে বাধ্য করেছিল।

ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর সদস্যদের ভাইফোঁটা দেওয়ার বিষয়ে লকেট বলেন, যারা ঘর ছেড়ে, বোনদের ছেড়ে দিনের পর দিন সীমান্তে থেকে দেশরক্ষার কাজ করে চলেছেন, ভাইফোঁটার দিনে তাঁদের কপালে ফোঁটা দিয়ে বোনদের অভাব মেটাতে এসেছেন তিনি।

 

Related posts:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *