ভারত থেকে কাশ্মীরকে আলাদা করেই ছাড়বো’ বললেন মুসলিম ইসলামিক তথা জম্মুকাশ্মীরের গ্রান্ড মুফতি।

আপনাদের জানিয়ে দি, আসল উদেশ্য হলো ভারতকে টুকরো করতে উঠে পড়ে লেগেছে হাজার ও মুফতি ।

 

ভারত থেকে কাশ্মীরকে আলাদা করেই ছাড়বো’ বললেন মুসলিম ইসলামিক তথা জম্মুকাশ্মীরের গ্রান্ড মুফতি।

 

 Hindus.news 

দেশের প্রত্যেক জেলায় শরিয়া আদালত তৈরি করার জন্যে উঠেপড়ে লেগেছে ভারতের সবথেকে বড় মুসলিম সংগঠন অল ইন্ডিয়া মুসলিম পার্সোনাল ল বোর্ড। এই সংগঠনের দাবি ভারতে মুসলিমদের সমস্যা সমাধানের জন্য সংবিধানের বদলে শরিয়া আদালত নির্মাণ করার সিধান্ত নিয়েছেন। মুসলিম পার্সোনাল ল বোর্ডের এই সিদ্ধান্তে কংগ্রেস সমৰ্থন জানালেও , শরিয়া আদালতের তীব্র বিরোধিতা করেছে বিজেপি।

আপনাদের জানিয়ে দি, এই শরিয়া আদালত তৈরী করার পিছনে আসল উদেশ্য হলো ভারতকে টুকরো করা। আসলে কট্টরপন্থীরা আরো একবার ধর্মের নামে আদালত তৈরি করে এবং মুসলিম সম্প্রদায়কে ভুল বুঝিয়ে ভারত ভেঙে নতুন ইসলামিক দেশ তৈরির পরিকল্পনায় লেগে পড়েছে।জানলে অবাক হবেন গতকাল এই বিষয়ের বক্তব্য রাখতে গিয়ে জম্মু কাশ্মীরের গ্রান্ড মুফতি বলেন, যদি শরিয়া আদালত না তৈরী করতে দেওয়া হয় তাহলে ভারতের মুসলিমদের উচিত ভারতের মধ্যে আলাদা দেশ তৈরির দাবি তোলা। শুধু এই নয় এক নিউজ মিডিয়ার ডিবেটে গ্রান্ড মুফতি নাসির উল ইসলাম বলেন কাশ্মীর ভারতের অংশ নয়।

 

কাশ্মীরকে ভারতের থেকে আলাদা করেই ছাড়বো।উল্লেখ্য বিজেপি প্রবক্তা সম্বিত পাত্র ওই মুফতির উপর জোরদার আক্রমন করেন এবং ভারতের খেয়ে পাকিস্তানের গুনগান করার জন্য মুফতিকে বেইমান বলেও অভিহিত করেন। সম্বিত পাত্র। বলেন, আজ আমরা নাসির উল ইসলামকে গুরুত্ব নিয়ে ভাবছি না কিন্তু পরে এরাই আমাদের জন্য বিপদ হয়ে দাঁড়াতে পারে। তাই সকলকে এখন থেকেই সচেতন হতে হবে। আপনাদের জানিয়ে রাখি কাশ্মীর নাম ঋষি কাশ্যপ এর নাম থেকে এসেছিল এবং কাশ্মীর আগে সম্পুর্নভাবে হিন্দুবহুল এলাকা ছিল কিন্তু পরবর্তীকালে জিহাদি শক্তির উৎপাতে হিন্দুদের পলায়ন করতে হয় যারা এখনো তাদের নিজের জমিবাড়ি ছেড়ে শরণার্থীর মতো দিল্লী ও ভারতের অন্যান জায়গায় অবস্থান করেছে।