২০১৯-এ মোদীকে আটকাতে চক্রান্ত চলছে বিশ্বব্যপী! বিরোধীদের পিছনে রয়েছে চিন-পাকিস্তান

 

২০১৯-এ মোদীকে আটকাতে চক্রান্ত চলছে বিশ্বব্যপী! বিরোধীদের পিছনে রয়েছে চিন-পাকিস্তান

 

২০১৯-এ ভারতের প্রধানমন্ত্রীর চেয়ারে নরেন্দ্র মোদীর
ফেরা আটকাতে বিশ্বব্যপী এক চক্রান্ত চলছে। ‘মোদী আতঙ্ক’ শুধু দেশের বিরোধী দলগুলিকেই একজোট করেনি, সেই জোটে সামিল চিন পাকিস্তানের মতো বিদেশী রাষ্ট্রও। এমনই অভিযোগ করলেন কর্ণাটকের এক বিজেপি নেতার।

সদ্য কংগ্রেস-জেডিএস জোট কর্ণাটকে সরকার গড়া থেকে আটকেছে বিজেপিকে। এই রাজ্যেরই বিজেপির সাধারণ সম্পাদক তথা বিধায়ক সি টি রবি-র দাবি কংগ্রেস আজ একটি মামুলি দলে পরিণত হয়েছে। মোদী ফিভার বা মোদী আতঙ্কেই কংগ্রেস ও আঞ্চলিক দলগুলি বিজেপির বিরুদ্ধে জোট বেধেছে। ২০১৯-এ মোদীকে আটকাতে দলগুলি নিজেদের নীতি-আদর্শও ত্যাগ করেছে। পাশাপাশি চিন-পাকিস্তানও চায় না ভারতের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে ফিরুন নরেন্দ্র মোদী। তাই এই জোটকে পিছন থেকে তারাও মদত দিচ্ছে বলে তাঁর অভিযোগ।

সি টি রবি বলেন, ‘আমাদের দেশের বিরোধী দলগুলির ভাবনা-চিন্তা সবই পাকিস্তান বা চিনের মতো। ২০১৯-এ ক্ষমতায় ফেরা থেকে মোদীকে আটকাতে আন্তর্জাতিক স্তরে ষড়যন্ত্র চলছে।’ কিন্তু পাকিস্তান-চিন কেন মোদীর ক্ষমতায় ফেরা আটকাতে চায়? বিজেপির রাজ্য সম্পাদকের দাবি, তাদের আশঙ্কা, মোদী তখতে থাকলে ভারত আগামী দিনে আরও শক্তিশালী রাষ্ট্রে পরিণত হবে।

 

 

Related posts:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *